এক ফোনেই কচুয়ায় অক্সিজেন নিয়ে রোগীর বাড়ি ছুটছেন আলহাজ্ব মো: গোলাম হোসেনের কর্মীরা

এক-ফোনেই-কচুয়ায়-অক্সিজেন-1

কচুয়া উপজেলায় করোনা প্রতিরোধে সার্বক্ষণিক অক্সিজেন সেবা দিতে কাজ করে যাচ্ছেন সাবেক এনবিআর-এর  চেয়ারম্যান ও সচিব আলহাজ্ব মো: গোলাম হোসেনের টিম। শ্বাসকষ্টজনিত কিংবা করোনা আক্রান্ত উপসর্গের কারণে কারো অক্সিজেন প্রয়োজন হলে, একটি ফোন কল পাবার সঙ্গে সঙ্গে অক্সিজেন ভর্তি সিলিন্ডার নিয়ে ছুটে যাচ্ছেন রোগীর বাড়িতে।

বিনা মূল্যে জীবন রক্ষাকারী উপাদান অক্সিজেন সহায়তা প্রদান করছেন -আলহাজ্ব মো গোলাম হোসেন​

গত ২ আগস্ট থেকে কচুয়া উপজেলার ১টি পৌরসভা এবং ১২ টি ইউনিয়নে  ২৪ ঘন্টা এ সেবা দেয়া হচ্ছে। এছাড়া কচুয়া উপজেলার করোনা সংক্রমণরোধে বিভিন্নস্থানে বিতরণ করা হচ্ছে মাস্ক ও হ্যান্ডস্যানিটাইজার। তার পাশাপাশি তিনি তার ফেসবুক পেজ, ওয়েবসাইট ও অন্যান্য ডিজিটাল মাদ্ধমে ও সতর্কতা মুলক তৎপরতা চালু রেখেছেন।

এর আগে  করনা মহামারি  শুরু থেকে ছিলেন কচুয়া উপজেলা তথা চাঁদপুরের জেলার সর্ব স্তরেরে মানুষের জন্য কাজ করে যাচ্ছেন। করনা মহামারি  শুরুর ২০২০ সাল থেকে মানবতার নিদর্শন হিসেবে কচুয়া উপজেলায় হাজার  হাজার পরিবারকে খাদ্য সহায়তা দিয়েছেন । এবার ও কচুয়া উপজেলায় ১৩ হাজার পরিবারকে খাদ্য সহায়তা দিয়েছেন আলহাজ্ব মো: গোলাম হোসেন ।

free oxygen for covid patients by md ghulam hussain kachua chandpur

গোলাম হোসেনের টিমের কর্মীরা জানান, কচুয়া উপজেলায় করোনা সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ায় এ এলাকার কৃতী সন্তান এনবিআরের সাবেক চেয়ারম্যান মো. গোলাম হোসেনের অর্থায়নে গত ২ আগস্ট থেকে ২০টি অক্সিজেন সিলিন্ডারের মাধ্যমে রোগীদের সেবা দেয়া শুরু করেছেন।  ইতিমদ্ধে আমরা ৭০ জন রুগী কে অক্সিজেন সেবা দিয়েছি। তাছাড়া আগের মতই মাস্ক ও হ্যান্ডস্যানিটাইজার বিতরণ অব্যাহত রয়েছে।

কর্মীরা জানান, আমাদের হটলাইনে যে কেউ ফোন করলেই সঙ্গে সঙ্গেই আমরা ওই রোগীর চাহিদা অনুযায়ী সমগ্র কচুয়ায় অক্সিজেন সহযোগিতা দেয়ার জন্য ছুটে যাচ্ছি। এ টিমের হটলাইন- ০১৭১১৩৪০০০১, ০১৭১৩৬১০৪৬৬, ০১৮১৪৮৩৯১৭৭, ০১৭৮১৮৮২২৪৮, ০১৮১১৫২২৬৪৪, ০১৮১৮৬৭৩০৭৫।

অক্সিজেন-কচুয়া-গোলাম-হোসেনের-কর্মীরা

করোনাকালে জনগণকে সেবা দেয়ার জন্য এনবিআরের সাবেক চেয়ারম্যান মো. গোলাম হোসেনের সার্বিক সহযোগিতা ও পরামর্শে কচুয়া উপজেলায় প্রতিটি ইউনিয়নে আওয়ামী লীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগ নেতাকর্মীদের সমন্বয়ে ১০ সদস্য বিশিষ্ট কমিটি গঠন করা হয়েছে। ইউনিয়ন / উপজেলার পর্যায়ে কন্ট্রোল রুমের মাধ্যমে এ সেবা দেয়া হচ্ছে।

free oxygen for covid md ghulam hussain

মাঠ পর্যায়ে কচুয়ায় অক্সিজেন ঠিক ভাবে রুগীর কাছে পৌঁছানোর জন্য এই টিমের যৌথভাবে নেতৃত্ব দিচ্ছেন সাময়িক বহিস্কৃত উপজেলা চেয়ারম্যান শাহজাহান শিশির, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক বাতেন সরকার, জেলা পরিষদ সদস্য মো. জুবায়ের হোসেন, পৌর কাউন্সিলর কামাল হোসেন অন্তর, পৌর কাউন্সিলর আবুল খায়ের রুমি, কচুয়া বাজার কমিটির সাধারণ সম্পাদক মনির হোসেন প্রধান সহে আরও অনেকে।

কচুয়ায়-অক্সিজেন

এ বিষয়ে এনবিআরের সাবেক চেয়ারম্যান মো. গোলাম হোসেন বলেন, এই অতিমারির সময়ে জাতির জনক বন্ধু কন্যা মাননীয় শেখ হাসিনার নেতৃত্বে সরকার দেশের জনগণের জন্য কাজ করে যাচ্ছে। জন টিকা কার্যক্রম চলছে, সরকার ইতমদ্ধে ইউনিয়ন পর্যায়ে ও টিকা দান অব্যাহত রেখেছে। মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর আহ্বানে এবং মানবিক দৃষ্টিভঙ্গি থেকে মানুষের পাশে দাড়ানোর চেষ্টা অব্যাহত রেখেছি।

করোনা প্রতিরোধে  ও মানুষের জীবন রক্ষ্যার চেষ্টায় আমরা অক্সিজেন সেবাসহ বিভিন্ন কার্যক্রম পরিচালনা করছি। মানুষের চাহিদা অনুযায়ী প্রয়োজনে এ সেবার পরিধি আরও বাড়ানো হবে। যতদিন পর্যন্ত প্রয়োজন ততোদিন এ সেবা দেয়া হবে।

তিনি বলেন, এই দুর্যোগকালে মানুষের সেবা যারা মাঠে সহযোগিতা করছেন তাদের কাছেও আমি কৃতজ্ঞ।

free oxygen for covid patients ghulam hussain

ইউনিয়ন পর্যায়ে এ সেবামূলক কাজে নেতৃত্বে দিচ্ছেনঃ

১নং সাচার ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি মো: মিজান মুহুরী,

২নং পাথৈর ইউনিয়নের মো: মামুন চৌধুরী,

৩নং বিতারা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ সভাপতি মো: হারুন পাটওয়ারী,

৪নং পালাখাল মডেল ইউনিয়নের মো: বাবুল সরদার,

৫নং সহেদপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ সভাপতি মো: আলমগীর হোসেন,

৬নং উত্তর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ সভাপতি মো: কাজী জহিরুল ইসলাম টগর,

৭নং কচুয়া দক্ষিন ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ সভাপতি মো: লিটন মুন্সী,

৮নং কাদলা ইউনিয়নের মো: আলমগীর তালুকদার,

৯নং কড়ইয়া ইউনিয়নের মো: সেলিম সরকার,

১০নং গোহট উত্তর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক মো: শাহাজান প্রধানীয়া ও মনির হোসেন,

১১নং গোহট দক্ষিন ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি মো: সেলিম,

১২নং আশ্ররাপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক মো: রেজাউল মাওলা হেলাল মুন্সী।

Source: chandpurprotidin

Leave a Comment